বৃহস্পতিবার, ২৯ জুন২০১৭, ১৫ আষাঢ়১৪২৪, দুপুর ১:২০

Space for ad

Space for ad

Homeখেলার খবরসরে দাঁড়ালেন আমলা
hasim amla

সরে দাঁড়ালেন আমলা


ট্যুরিজ্‌ম নিউজ বিডিঃ

hasim amla

দক্ষিণ আফ্রিকার টেস্ট অধিনায়কের পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন হাশিম আমলা। ভারত সফরের পর থেকেই তার নেতৃত্ব সমালোচনার মুখে পড়ে যায়। ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ডারবান টেস্ট হারলে চারদিকে কানাঘুষা শুরু হয়। কিন্তু অতিশয় ভদ্রলোক আমলা সেই কানাঘুষাকে প্রলম্বিত করার সুযোগ না দিয়ে কেপটাউন টেস্টের পরপরই সসম্মানে অধিনায়কের পদ থেকে প্রস্থান করেছেন।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চার টেস্টের সিরিজে দু টেস্ট শেষে ইংল্যান্ড এগিয়ে রয়েছে ১-০ ব্যবধানে। বাকি দু’টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকাকে নেতৃত্ব দেবেন ওয়ানডে অধিনায়ক এবি ডি ভিলিয়ার্স। ইংল্যান্ডের সঙ্গে সিরিজ শুরু হওয়ার আগে থেকেই সমালোচনার তীরে বিদ্ধ হতে থাকেন আমলা। তিনি সব সমালোচনার জবাব দেন ব্যাট হাতে ২০১ রানের ইনিংস খেলে। কিন্তু সবাইকে অবাক করে ফর্মে ফিরে নেতৃত্ব ছাড়ার ঘোষণা দিলেন আমলা।

২০১৪ সালে গ্রায়েম স্মিথ অবসরে যাওয়ার পর দক্ষিণ আফ্রিকার টেস্ট ক্রিকেটের দায়িত্ব বর্তায় আমলার উপর। ইংল্যান্ড সিরিজ নিয়ে মোট ছয়টি সিরিজে নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি। বিদেশের মাটিতে জিম্বাবুয়ে, শ্রীলংকা এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আমলার নেতৃত্বে টেস্ট সিরিজ জেতে দক্ষিণ আফ্রিকা। বৃষ্টিবিঘ্নিত বাংলাদেশ সিরিজ হয় ড্র। এরপর ভারত সফরে ভয়াবহ রকম বিপর্যয়ে পড়ে আমলার দল। চার টেস্টের সিরিজে বৃষ্টির কল্যাণে কেবল একটি টেস্ট ড্র হয়। বাকি তিনটিতেই তাদের  হারতে হয়েছে।

এক বিবৃতিতে অবসরের কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে আমলা বলেছেন, ‘এই সিদ্ধান্ত নেওয়া আমার জন্য সহজ ছিল না। আমার মনে হয়েছে, আমি নিজের কাছে সৎ থাকবো। বুঝেশুনেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমি মনে করি, আমার নিজের খেলার দিকে আরও বেশি মনোযোগ দেওয়া দরকার।’

দেশকে টেস্ট ক্রিকেটে নেতৃত্ব দেওয়াটা গর্বের ব্যাপার। আমলাও জানিয়েছেন, দক্ষিণ আফ্রিকাকে নেতৃত্ব দিতে পেরে তিনি ভীষণ গর্ব অনুভব করেছেন, ‘নেতৃত্ব পাওয়ার পর খুব সম্মানিত বোধ করছিলাম। নেতৃত্ব দেওয়ার পুরোটা সময় আমার সতীর্থ এবং সাপোর্ট স্টাফরা আমাকে সমর্থন দিয়ে গেছে।’

সবার কাছে আমলার হঠাৎ অবসরের সিদ্ধান্ত বিস্ময়ের হলেও তার কাছে মনে হচ্ছে না, ‘আমি এ ব্যাপারে দলের বেশ কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলেছি। সুতরাং আমি মনে করি না এতে বিস্ময়ের কিছু আছে। এবি’র যথেষ্ট যোগ্যতা রয়েছে একজন দুর্দান্ত অধিনায়ক হওয়ার।’

ওয়ানডে অধিনায়ক ছিলেনই। এবার দুই টেস্টের জন্য এবি ডি ভিলিয়ার্স পেয়ে গেলেন দক্ষিণ আফ্রিকার টেস্ট দলের নেতৃত্বও। ভিলিয়ার্সের কথায়, ‘আমি আগেই বলেছিলাম, যে কোন ফরম্যাটেই দক্ষিণ আফ্রিকাকে নেতৃত্ব দেওয়া বড় সম্মানের। এই মুহূর্তে আমার মুল লক্ষ্য থাকবে নেতৃত্ব দলকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া এবং ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে স্মরণীয় সিরিজ জয় উপহার দেওয়ার চেষ্টা করা।’

 

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

আপনি চাইলে এই এইচটিএমএল ট্যাগগুলোও ব্যবহার করতে পারেন: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

এই মাত্র পাওয়া